অভিষেকেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে জোড়া গোল মার্কাসের

প্রকাশিতঃ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ আপডেটঃ ১০:৩২ অপরাহ্ণ

খেলা শুরুর আধঘণ্টা আগেই জানতে পেরেছিলেন তিনি খেলছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে। প্রথমবার প্রথম দলে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অ্যাকাডেমি থেকে সিনিয়র দলে নাম লেখানো মার্কাস র‌্যাশফোর্ডের সিনির দলের দরজা খুলে গেল ওয়ার্ম আপের সময় অ্যান্থনি মার্শাল চোট পেতেই। সুযোগ পেয়েই দলের বড় জয়ে জোড়া গোল করে নাম লিখিয়ে ফেললেন অ্যান্থনি। যার ফলে ইউরোপা লিগের শেষ ১৬য় জায়গা করে নিল ঢুকতে থাকা রুনিহীন ম্যানচেস্টার। বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে ১০ জনের মিডজিল্যান্ডকে ৫-১ গোলে হারিয়ে মোট ৬-৩ গোলে জিতে শেষ ১৬ নিশ্চিত করল লুই ফানহালের ছেলেরা। প্রথম লেগে  মিডজিল্যান্ডের কাছে ২-১ গোলে হেরে গিয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দ্বিতীয় লেগে সেটা সুদে আসলে উসুল করে নিলেন রোমেরো, হেরেরা, মাতারা।

যদিও অ্যাওয়ে ম্যাচে ম্যাঞ্চেস্টার সমর্থকদের চমকে দিয়ে শুরুতে গোলের মুখ খুলে ফেলেছিল মিডজিল্যান্ডের পিওনে সিসতো। কিন্তু এই এগিয়ে যাওয়া ধরে রাখতে দিল না নিকোলে বদুরভ। নিজের গোলেই বল পাঠিয়ে সমতায় ফেরালেন ম্যা়নচেস্টার ইউনাইটেডকে। এর পর ছিল ৪৩ মিনিটে ম্যানুয়েল মাতার পেনাল্টি মিস। তখনও ম্যাচ ১-১। বক্সের মধ্যে হেরেরাকে অন্যায়ভাবে ফেলে দিয়ে ম্যানচেস্টারকে পেনাল্টি পাইয়ে দিয়েছিলেন আন্দ্রে রোমার। কিন্তু মাতার শট ডানদিকে ঝাপিয়ে বাঁচিয়ে দেন গোলকিপার মিকেল অ্যান্ডারসন। দ্বিতীয়ার্দের শুরুটা ছিল দু’পক্ষেরই সুযোগ নষ্টের প্রতিযোগিতা।

৬৩ মিনিটে নিজের জাত চেনানোর শুরু মার্কাসের। ভারেলার ক্রস ধরে মাতার থ্রু বক্সের মধ্যে পেয়ে দ্বিতীয়বার ভাবেননি মার্কাস। চলতি বলেই তাঁর শট চলে যায় গোলে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে নিজের নামের পাশে প্রথম গোল লিখিয়ে ফেলার পর আর তাঁকে আটকানো যায়নি। ৭৫ মিনিটে এল তাঁর দ্বিতীয় গোল। মাতার সঙ্গে ওয়ান-টু খেলে পাস বাড়িয়েছিলেন ভারেলা। পিছন থেকে এসে মাপা ফিনিশ সেই মার্কাস র‌্যাশফোর্ডের। ৮৭ মিনিটে হেরেরার পেনাল্টি থেকে ৪-১ গোলে এগিয়ে গেল ম্যানচেস্টার। আগের পেনাল্টি পাওয়ার পিছনে যিনি ছিলেন সেই রোমারের দয়ায় আবার পেনাল্টি পেয়েছিল ডিপেরা। সঙ্গে জোড়া হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হল আন্দ্রে রোমারকে। শেষ বাঁশি বাজার ঠিক আগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে পঞ্চম গোল মেমফিস ডিপে।

স্পোর্টস ডেস্ক (সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা)